Schemes & Syllabus

WBCS Syllabus

WBCS-২০১৯-এর প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ২০ জানুয়ারি

রাজ্যজুড়ে ২০টি কেন্দ্রে পরীক্ষা হবে.প্রিলিমিনারি ও মেন পরীক্ষা এবং পার্সোনাল ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে প্রার্থী বাছাই করবে পশ্চিমবঙ্গ পাবলিক সার্ভিস কমিশন.

যে-কোনও শাখার গ্র্যাজুয়েটরাই পরীক্ষায় বসতে পারবেন.অনলাইন দরখাস্ত করা যাবে।.২৬ নভেম্বর পর্যন্ত, এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে

www.pscwbapplication.in

.গতবছর থেকে ডব্লু বি সি এস পরীক্ষায় বসার জন্য বয়সের ঊর্ধ্বসীমা বাড়ানাে হয়েছে।. ৩৬ বছরের মধ্যে বয়স থাকলে ‘এ’, ‘বি’ ও ‘সি’ গ্রুপের পরীক্ষায় বসা যাবে।. ‘ডি’ গ্রুপের ক্ষেত্রে বয়সের ঊধ্বসীমা ৩৯ বছর।. পশ্চিমবঙ্গের তফসিলি এবং ও বি সিরা বয়সে যথাক্রমে ৫ ও ৩ বছরের ছাড় পাবেন।.দৈহিক প্রতিবন্ধীরা ৪৫ বছরের মধ্যে বয়স থাকলে আবেদন করতে পারবেন।. একজন প্রার্থী চাইলে একাধিক গ্রুপের জন্য আবেদন করতে পারেন।দরখাস্তের নির্দিষ্ট কলমে পছন্দের গ্রুপ জানিয়ে দিতে হবে।বি’ গ্রুপ তথা পুলিশ সার্ভিসের প্রার্থীদের নির্দিষ্ট দৈহিক মাপজোক থাকতে হবে।দৃষ্টিহীন ও মূক-বধিরদের নিয়ে কাজ করার বিশেষ প্রশিক্ষণ (ডিগ্রি, ডিপ্লোমা, সার্টিফিকেট) থাকলে তবেই ওয়েস্ট বেঙ্গল জুনিয়র সােশ্যাল ওয়েলফেয়ার সার্ভিসের জন্য বিবেচিত হওয়া যাবে। প্রশিক্ষণ না থাকলে চাকরি করতে করতেই প্রশিক্ষণ সম্পূর্ণ করতে হবে।

প্রিলিমিনারি পরীক্ষা একটিই।২০০ নম্বরের একটিই পত্রের পরীক্ষা। এই পরীক্ষা একটি স্ক্রিনিং টেস্ট। এই পরীক্ষায় সফল বলে ঘােষিতরা মেন পরীক্ষায় বসার ছাড়পত্র পাবেন। মেন পরীক্ষার জন্য কমিশন কর্তৃক নির্দিষ্ট তালিকা থেকে অপশনাল পেপার বেছে নিতে হবে। মেন পরীক্ষায় ভাষার পত্র ছাড়া অন্যান্য পত্রের ক্ষেত্রে ইংরেজি বা বাংলায় উত্তর লেখা যাবে। তবে, কোনও নির্দিষ্ট পত্রের উত্তর একই ভাষায় লিখতে হবে। অর্থাৎ একই পত্রের কোনও প্রশ্নের উত্তর ইংরেজিতে, কোনও প্রশ্নের উত্তর বাংলায় লিখলে চলবে না।

ডব্লু বি সি এস পরীক্ষার মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিভিন্ন সার্ভিস ও পদে কয়েকশাে অফিসার নিয়ােগ করা

২০১৯-এর পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি নম্বর ২৯/২০১৮।

শিক্ষাগত যােগ্যতা:

যে-কোনও শাখায় গ্র্যাজুয়েট।

বয়স:

‘এ’ ও ‘সি’ গ্রুপের প্রার্থীদের ক্ষেত্রে ২১ থেকে ৩৬ বছরের মধ্যে হতে হবে। জন্মতারিখ হতে হবে ২-১-১৯৮৩ থেকে ১-১-১৯৯৮-এর মধ্যে। ‘বি’ গ্রুপের ক্ষেত্রে বয়স হতে হবে ২০ থেকে ৩৬ বছরের মধ্যে। জন্মতারিখ হতে হবে ২-১-১৯৮৩ থেকে ১-১-১৯৯৯-এর মধ্যে। ‘ডি’ গ্রুপের প্রার্থীদের বয়স হতে হবে ২১ থেকে ৩৯ বছরের মধ্যে। জন্মতারিখ হতে হবে ২-১-১৯৮০ থেকে ১১-১৯৯৮-এর মধ্যে।

সব ক্ষেত্রেই ১-১-২০১৯ তারিখে নির্দিষ্ট বয়স থাকতে হবে। তফসিলি, ও বি সি, দৈহিক প্রতিবন্ধীরা নিয়মানুসারে বয়সের ছাড় পাবেন।

কোন গ্রুপে কোন চাকরি

‘এ’ গ্রুপ:

নিয়ােগ হয় এইসব সার্ভিসে: ওয়েস্ট বেঙ্গল সিভিল সার্ভিস (এক্সিকিউটিভ), ওয়েস্ট বেঙ্গল কমার্শিয়াল ট্যাক্স সার্ভিস, ওয়েস্ট বেঙ্গল এগ্রিকালচারাল ইনকাম ট্যাক্স সার্ভিস, ওয়েস্ট বেঙ্গল এক্সাইজ সার্ভিস, ওয়েস্ট বেঙ্গল কো-অপারেটিভ সার্ভিস, ওয়েস্ট বেঙ্গল লেবার সার্ভিস, ওয়েস্ট বেঙ্গল ফুড অ্যান্ড সাপ্লাইজ সার্ভিস, ওয়েস্ট বেঙ্গল এমপ্লয়মেন্ট সার্ভিস (এমপ্লয়মেন্ট অফিসার [টেকনিক্যাল বাদে), ওয়েস্ট বেঙ্গল রেজিস্ট্রেশন অ্যান্ড স্ট্যাম্প রেভেনিউ সার্ভিস।

‘বি’ গ্রুপ:

ওয়েস্ট বেঙ্গল পুলিশ সার্ভিস।

‘সি’ গ্রুপ:

সুপারিন্টেন্ডেন্ট, ডিস্ট্রিক্ট কারেকশনাল হােম, ডেপুটি সুপারিন্টেন্ডেন্ট, সেন্ট্রাল কারেকশনাল হােম, জয়েন্ট ব্লক ডেভেলপমেন্ট অফিসার, ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর অব কনজিউমার অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড ফেয়ার বিজনেস প্র্যাক্টিসেস, ওয়েস্ট বেঙ্গল জুনিয়র সােশ্যাল ওয়েলফেয়ার সার্ভিস, ওয়েস্ট বেঙ্গল সাব-অর্ডিনেট ল্যান্ড রেভেনিউ সার্ভিস (গ্রেড-ওয়ান), অ্যাসিস্ট্যান্ট কমার্শিয়াল ট্যাক্স অফিসার, অ্যাসিস্ট্যান্ট ক্যানাল রেভেনিউ অফিসার (ইরিগেশন), চিফ কন্ট্রোলার অব কারেকশনাল সার্ভিসেস।

‘ডি’ গ্রুপ:

ইনস্পেক্টর অব কো-অপারেটিভ সােসাইটিজ, পঞ্চায়েত ডেভেলপমেন্ট অফিসার আন্ডার দ্য পঞ্চায়েত অ্যান্ড রুরাল ডেভেলপমেন্ট ডিপার্টমেন্ট, রিহ্যাবিলিটেশন অফিসার আন্ডার দ্য রিফিউজি রিলিফ অ্যান্ড। রিহ্যাবিলিটেশন ডিপার্টমেন্ট।

প্রার্থী বাছাই:

ডব্লু বি সি এস পরীক্ষা মােট তিনটি পর্বে হয়। প্রথম পর্বে আছে। অবজেক্টিভ টাইপ প্রিলিমিনারি পরীক্ষা। মনে রাখবেন প্রিলিমিনারি পরীক্ষা শুধুমাত্র একটি স্ক্রিনিং টেস্ট। এতে পাওয়া নম্বর চূড়ান্ত প্রার্থী বাছাইয়ের জন্য গণ্য হবে না। এই পরীক্ষায় সফল হলে লিখিত মেন পরীক্ষায় বসার ছাড়পত্র মেলে। মেন পরীক্ষায় সফল হলে নেওয়া হয় তৃতীয় পর্যায়ের পার্সোন্যালিটি টেস্ট। মেন এবং পার্সোন্যালিটি টেস্টে সফলতার ভিত্তিতেই চূড়ান্ত মেধাতালিকা তৈরি হয়।

কিছু শর্ত: ডব্লু বি সি এস পরীক্ষায় কতগুলি গ্রুপে আবেদন করতে হলে অতিরিক্ত যােগ্যতার প্রয়ােজন: (ক) ওয়েস্ট বেঙ্গল পুলিশ সার্ভিস গ্রুপ ‘বি’, আবেদনের জন্য নির্দিষ্ট শারীরিক মাপজোক চাই! পুরুষদের ক্ষেত্রে উচ্চতা হতে হবে অন্তত ১.৬৫ মিটার, মহিলাদের ক্ষেত্রে অন্তত ১.৫০ মিটার। গােখা প্রার্থীরা উচ্চতায় নিয়মানুসারে ছাড় পাবেন। (খ) অ্যাসিস্ট্যান্ট ক্যানাল রেভেনিউ অফিসার (গুপ। সি’): একেবারে প্রান্তিক অঞ্চলে গ্রামেগঞ্জে ঘুরে সাধারণ মানুষের সঙ্গে মিলেমিশে কাজ করার মানসিকতা থাকতে হবে। (গ) ওয়েস্ট বেঙ্গল জনিয়র সােশ্যাল ওয়েলফেয়ার সার্ভিস (গ্রুপ ‘সি’): অন্ধ, মূক ও বধির প্রতিবন্ধীদের হােমে যেহেত কাজ করতে হবে, তাই তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার উপযুক্ত ডিগ্রি, ডিপ্লোমা বা। সার্টিফিকেট থাকতে হবে। যদি তা না থাকে তাহলে চাকরি পাওয়ার পর এই প্রশিক্ষণ। নিতে হবে। (ঘ) ওয়েস্ট বেঙ্গল সাব-অর্ডিনেট ল্যান্ড রেভেনিউ সার্ভিস, গ্রেড ওয়ান (প ‘সি’); বাংলায় লিখতে, পড়তে বলতে জানতে হবে। পানিদের গেল এই শীতে তি৬ি আছে। তবে চাকরি পাওয়ার ১ বছরের মধ্যে বাংলায় একটি বিভাগীয় পরীক্ষায় সফল হতে হবে।

গ্রুপ অনুসারে বেতনক্রম:

গ্রুপ – এ: ১৫,৬০০-৭৫,০০০ টাকা। গ্রেড পে ৫,৪০০ টাকা। গ্রুপ ‘বি’: ১৫,৬০০-৭৫,০০০ টাকা। গ্রেড পে ৫,৪০০ টাকা।গ্রুপ সি: ৯,৩০০-৪৫,০০০ টাকা। পদ অনুসারে গ্রেড পে ৪,৪০০), গ্রুপ ডি গ্রেড পে ৩,৯০০ টাকা।

অনলাইন দরখাস্ত করতে হবে এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে: www.wbapplication.in প্রার্থীর চাল] ই-মেল আই ডি থাকতে হবে। অনলাইন দরখাস্ত করা যাবে ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত। মনে রাখবেন, অনলাইন দরখাস্ত করার সময় প্রাণীর স্ক্যান করা পাসপাের্ট মাপের ফটো ও কালাে কালির সই আপলোড করতে হবে।

দরখাস্ত করার আগে প্রার্থীদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ‘ওয়ান টাইম রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। তবে কোনও প্রার্থী যদি আগে পশ্চিমবঙ্গ পাবলিক সার্ভিস কমিশন আয়ােজিত কোনও চাকরির পরীক্ষার দরখাস্তের ক্ষেত্রে ‘ওয়ান টাইম রেজিস্ট্রেশন করে থাকেন. তাকে আর দ্বিতীয়বার এই প্রক্রিয়ার সাহায্য নিতে হবে না।আগেকার রেজিস্ট্রেশন আই ডি ও পাসওয়ার্ডের মাধ্যমেই অনলাইন দরখাস্ত করা যাবে।

এ ফি বাবদ দিতে হবে ২১০ টাকা। সার্ভিস চার্জ অতিরিক্ত। অনলাইন এবং অফলাইন- দু’রকম ব্যবস্থাতেই ফি জমা দেওয়া যাবে। অনলাইনে ফি দেওয়া যাবে ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড অথবা নেট ব্যাঙ্কিংয়ের মাধ্যমে। অফলাইনে ফি জমা দিতে হবে চালানের মাধ্যমে ইউনাইটেড ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়ায়। চালান ডাউনলােড করে নেবেন উপরােক্ত ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। অফলাইন ব্যবস্থায় ফি জমা দেওয়া যাবে ২৭ নভেম্বর পর্যন্ত। পশ্চিমবঙ্গের তফসিলি ও দৈহিক প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের কোনও ফি দিতে হবে না।

পরীক্ষার ধরনধারণ প্রিলিমিনারি পরীক্ষা:

প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় একটিই পেপারের উত্তর দিতে হবে। থাকবে ‘জেনারেল স্টাডিজ বিষয়ে ২০০টি মাল্টিপল চয়েস অবজেক্টিভ টাইপ প্রশ্ন। প্রশ্ন হবে এইসব বিষয়ে:

(১) ইংলিশ কম্পােজিশন,

(২) জেনারেল সায়েন্স,

(৩) জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রের গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাবলি (কারেন্ট ইভেন্টস),

(৪) ভারতের ইতিহাস,

(৫) ভারতের ভূগােল (এক্ষেত্রে পশ্চিমবঙ্গের ভূগােল গুরুত্ব পাবে),

(৬) ভারতের অর্থনীতি ও রাজনীতি,

(৭) ভারতের জাতীয় আন্দোলন ও

(৮) সাধারণ মানসিক দক্ষতা।

স্নাতক মানের প্রশ্ন আসবে। প্রত্যেক বিষয়ে নম্বর ২৫। মােট নম্বর ২০০। সময় আড়াই ঘণ্টা।

প্রিলিমিনারি পরীক্ষার কেন্দ্র (ব্র্যাকেটে কোড):

উত্তর কলকাতা (০১), দক্ষিণ কলকাতা (০২).

বারুইপুর (০৩), ডায়মন্ড হারবার (০৪), বারাকপুর (০৫), বারাসাত (০৬), হাওড়া (০৭), বর্ধমান (০৮), আসানসােল (০৯), মেদিনীপুর (১০), তমলুক (১১), বাঁকুড়া (১২), বহরমপুর (১৩), মালদা (১৪), জলপাইগুড়ি (১৫), আলিপুরদুয়ার (১৬), কোচবিহার (১৭).শিলিগুড়ি (১৮), কালিম্পং (১৯), দার্জিলিং (২০)। দার্জিলিং জেলার তফসিলি উপজাতি এবং দার্জিলিং সদর, মিরিক ও কার্শিয়াং সাব-ডিভিশনের প্রার্থীরাই কেবল দার্জিলিং কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে পারবেন। কালিম্পং জেলার প্রার্থীদের পরীক্ষাকেন্দ্র কালিম্পং।

মেন পরীক্ষা:

মেন পরীক্ষায় থাকবে ৬টি কম্পালসারি পেপার এবং ১টি অপশনাল সাবজেক্ট (শুধুমাত্র গ্রুপ ‘এ’ এবং গ্রুপ ‘বি’র প্রার্থদের ক্ষেত্রে)।অপশনাল সাবজেক্টে থাকবে ২টি পেপার। প্রতিটি কম্পালসারি এবং অপশনাল সাবজেক্টের পেপারের পূর্ণমান ২০০। সময় ৩ ঘন্টা করে।

কম্পালসারি পেপার:

৬টি কম্পালসারি পেপারের মধ্যে পেপার-ওয়ান এবং পেপার-টু-এর ক্ষেত্রে কনভেনশনাল টাইপ লিখিত পরীক্ষা হবে। এছাড়া অন্য চারটি কম্পালসারি পেপারের ক্ষেত্রে ও এম আর শিটে অবজেক্টিভ ধরনের মাল্টিপল চয়েস প্রশ্নের উত্তর করতে হবে। পেপার-ওয়ানে নেওয়া হবে বাংলা, হিন্দি, উর্দু, নেপালি ও সাঁওতালির মধ্যে যেকোনও একটি ভাষার পরীক্ষা. থাকে লেটার রাইটিং ড্রাফটিং অব রিপাের্ট, প্রেসি রাইটিং, কম্পােজিশন, ইংরেজি থেকে বাংলা বা হিন্দি বা উর্দু বা নেপালি বা সাঁওতালি ভাষায় ট্রানস্লেশন। মা পেপার-টু-তে আছে ইংরেজিতে লেটার রাইটিং/ড্রাফটিং অব রিপাের্ট, প্রেসি রাইটিং, কম্পােজিশন, বাংলা বা হিন্দি বা উর্দু বা নেপালি বা সাঁওতালি থেকে ইংরেজিতে ট্রানস্লেশন।।

পেপার-থ্রি-তে আছে জেনারেল স্টাডিজ-ওয়ান: (১) ইন্ডিয়ান হিস্ট্রি উইথ স্পেশ্যাল এমফ্যাসিস অন ন্যাশনাল মুভমেন্ট. (২) জিওগ্রাফি অব ইন্ডিয়া (এক্ষেত্রে পশ্চিমবঙ্গের ভূগােল গুরুত্ব পাবে). পেপার-ফোর-এ আছে জেনারেল স্টাডিজ-টু: (১) সায়েন্স অ্যান্ড সায়েন্টিফিক অ্যান্ড টেকনােলজিক্যাল অ্যাডভান্সমেন্ট, এনভায়রনমেন্ট, জেনারেল নলেজ এবং কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স।

পেপার-ফাইভ-এ আছে দ্য কনস্টিটিউশন অব ইন্ডিয়া অ্যান্ড ইন্ডিয়ান ইকোনমি ইনকুডিং রােল অ্যান্ড ফাংশানস অব রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া।

পেপার সিক্স-এ আছে অ্যারিথমেটিক এবং রিজনিংয়ের প্রশ্ন।

মনে রাখতে হবে ‘এ’ ও ‘বি’ গ্রুপের প্রার্থীরা ৬টি কম্পালসারি পেপার এবং

• একটি অপশনাল সাবজেক্টের দু’টি পেপারের পরীক্ষা দেবেন। সি’ ও ‘ডি’ গ্রুপের প্রার্থীরা শুধুমাত্র ৬টি কম্পালসারি পেপারের পরীক্ষা দেবেন।ভাষার পেপার ছাড়া বাকি সমস্ত কম্পালসারি এবং অপশনাল বিষয়ের উত্তর বাংলা বা ইংরেজিতে লেখা যাবে। সংস্কৃত বিষয়ের উত্তর দেবনাগরী বা বাংলা হরফে লেখা যাবে। সাঁওতালি বিষয়ের উত্তর লিখতে হবে অলচিকি লিপিতে। তবে একই পেপারে একাধিক ভাষায় উত্তর লেখা যাবে না। মাল্টিপল চয়েস প্রশ্নের ক্ষেত্রে ভুল উত্তরের জন্য নেগেটিভ মার্কিং থাকবে। এ পার্সোন্যালিটি টেস্ট: মেন লিখিত পরীক্ষার মেধাতালিকা অনুযায়ী চারটি গ্রুপেরই নির্বাচিত কিছু প্রার্থীকে ডাকা হয় পার্সোন্যালিটি টেস্টে। গ্রুপ ‘এ’ ও ‘বি’-এর ক্ষেত্রে পার্সোন্যালিটি টেস্টে থাকবে ২০০ নম্বর। গ্রুপ ‘সি’-এর ক্ষেত্রে ১৫০ নম্বর এবং গ্রুপ ‘ডি’-র ক্ষেত্রে ১০০ নম্বর।

কোন গ্রুপে কত নম্বরের পরীক্ষা:

গ্রুপ অনুযায়ী মেন লিখিত পরীক্ষার নম্বরের বিন্যাস এরকম:

গ্রুপ ‘এ’ এবং ‘বি’-এর জন্য ৬টি কম্পালসারি পেপারে ১,২০০ (২০০x৬).।

একটি অপশনাল সাবজেক্টের দুটি পেপারে ৪০০ (২০০x২) এবং পার্সোন্যালিটি টেস্টে ২০০।

অর্থাৎ সব মিলিয়ে মােট ১,৮০০ (১,৬০০+২০০)।

‘সি’-র জন্য ৬টি কম্পালসারি পেপারে ১,২০০ (২০০x৬) এবং পার্সোন্যালিটি টেস্টে ১৫০।

অর্থাৎ সব মিলিয়ে মােট ১,৩৫০ (১,২০০+১৫০).

গ্রুপ ‘ডি’-র জন্য ৬টি কম্পালসারি পেপারে ১,২০০ (২০০x৬) এবং পার্সোন্যালিটি টেস্টে ১০০, অর্থাৎ সব মিলিয়ে মােট ১,৩০০ (১,২০০+১০০)।

আগ্রহীরা খুঁটিনাটি তথ্য জানতে দেখুন এই ওয়েবসাইট: www. pscwbapplication.gov.in  পাবলিক সার্ভিস কমিশনের হেল্প ডেস্ক নম্বর: ৯৮৩৬২-১৯৯৯৪, ৯৮৩৬২৮৯৯৯৪, ৯০৭৩৯-৫৩৮২০।